'বিডি ফ্রি প্রেস' বাংলাদেশের প্রথম সংবাদ সংযোগকারী ব্লগ

মূলপাতা বাংলাদেশ

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’, সারাদেশে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি


প্রকাশের সময় :২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৩:৩৭ : অপরাহ্ণ

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত হতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে ভারত ও বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ‘গুলাব’ ভারতের ওডিশা ও অন্ধপ্রদেশ এলাকায় আঘাত হানতে যাচ্ছে; এর প্রভাবে সমুদ্রবন্দর ও নদীবন্দরে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এর ফলে ঢাকাসহ সারা দেশেই মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে, এরই মধ্যে রাজধানীর কোথাও কোথাও বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ এরই মধ্যে তাদের ওয়েবসাইটে একটি সাইক্লোন বা ঘূর্ণিঝড়ের আগমন সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়েছে।

এ সংক্রান্ত তাদের একটি আবহাওয়ার বুলেটিনে বলা হয়েছে, আজকের (শনিবার) মধ্যেই নিম্নচাপটির ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়টির গতি-প্রকৃতি দেখে মনে হচ্ছে, রবিবার রাত নাগাদ এটি অন্ধ্র প্রদেশের উত্তরাঞ্চল এবং উড়িষ্যা দক্ষিণাঞ্চল অতিক্রম করবে।

ঢাকায় আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ বলেন, তারা মোটামুটি নিশ্চিত যে নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘এই নিম্নচাপের ফলে যে বৃষ্টি হবে তাতে গরম কমবে। তবে গুলাবের আঘাতে দেশে তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না। দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টিপাত থাকবে আজ থেকে। কালকের মধ্যেই গুলাব নেমে যাবে।’

এদিকে,  গভীর নিম্নচাপের কারণে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে এক নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সঙ্কেত দেখিয়ে যেতে বলেছে।

গভীর নিম্নচাপটি সর্বশেষ চট্টগ্রাম থেকে ৪৮০ কিলোমিটার, কক্সবাজার থেকে ৪১৫ কিলোমিটার এবং ভারতের উড়িষ্যা উপকূল তেকে ৫১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছিল।

এর আগে বঙ্গোপসাগরে সবশেষ যে ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হয়েছিল, সেটির নাম ইয়াস।গত মে মাসে এটি ভারতের ওডিশায় আঘাত হেনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছিল।

উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ নামটি পাকিস্তানের দেয়া, যার ইংরেজি রোজ; বাংলায় অর্থ গোলাপ ফুল। বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার আঞ্চলিক কমিটি একেকটি ঝড়ের নামকরণ করে।


মতামত দিন

আরও খবর