'বিডি ফ্রি প্রেস' বাংলাদেশের প্রথম সংবাদ সংযোগকারী ব্লগ

মূলপাতা বাংলাদেশ

শাটডাউন: জরুরি পরিষেবা ছাড়া সব কিছু বন্ধের প্রস্তুতি!


প্রকাশের সময় :২৪ জুন, ২০২১ ১১:২৬ : অপরাহ্ণ

শাটডাউনদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু আশঙ্কাজনক হারে বাড়তে থাকায় করোনাবিষয়ক জাতীয় কমিটির দেওয়া সারাদেশে ১৪ দিন শাটডাউনের সুপারিশের বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত আসবে বলে আভাস দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, পরিস্থিতি এমন যে খুব দ্রুতই আমাদের এমন একটি সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে।

সারা দেশে সংক্রমণ মোকাবেলায় সরকারের যথেষ্ঠ প্রস্তুতিও আছে জানিয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে ‘করোনা মহামারির শুরুতে আমরা যেমন লকডাউন দিয়েছিলাম তার মতোই কিংবা তার চেয়ে আরও কঠোর হতে পারে এবারের শাটডাউন।’

সম্প্রতি করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় সীমান্তবর্তী বেশ কিছু জেলায় বিধিনিষেধ দেয়া হয়। ঢাকার আশপাশের সাত জেলাতেও বিধিনিষেধ চলছে গত মঙ্গলবার থেকে। দূরপাল্লার বাস বন্ধ থাকলেও মানুষের ঢাকায় আসা-যাওয়া বন্ধ হয়নি।

অন্যদিকে উত্তর ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে না। বরং করোনা পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ হচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে সারাদেশে শাটডাউনের সুপারিশ করেছে করোনাসংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। বিকালে সারাদেশ ১৪ দিনের শাটডাউনের সুপারিশের কথা জানায় পরামর্শক কমিটি।

শাটডাউন কী ?

শাটডাউন বলতে কী বোঝানো হয়েছে জানতে চাইলে কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লাহ বলেন, ‘শাটডাউন মানে হচ্ছে সবকিছু বন্ধ থাকবে, শুধু জরুরি সেবা ছাড়া। অফিস-আদালত, বাজারঘাট, গণপরিবহনসহ সব বন্ধ থাকবে। সবাই বাসায় থাকবে।’

‘জরুরি সেবা বলতে, ওষুধ, ফায়ার সার্ভিস, গণমাধ্যম ছাড়া সবকিছু দুই সপ্তাহ বন্ধ করে মানুষ যদি এই স্যাক্রিফাইস-কষ্টটুকু মেনে নেয়, তাহলে আগামীতে ভালো হবে। নইলে এখন যেভাবে শনাক্ত প্রতিদিন বাড়ছে, সেটা কোথায় যাবে তা সহজেই অনুমেয়’—বলেন অধ্যাপক সহিদুল্লাহ।

শাটডাউনের সুপারিশ সক্রিয় বিবেচনায় নেয়া হবে

কারিগরি পরামর্শক কমিটির সুপারিশের পর জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, আমরা খুবই গভীরভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি।

এরই মাঝে আমরা ঢাকার চারপাশের ৭ জেলা এবং সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোকে কঠোর বিধিনিষেধের আওতায় এনেছি।

অবস্থা বিবেচনায় ঢাকাসহ সারাদেশে শাটডাউনের প্রস্তুতি সরকারের আছে।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। বিশেষজ্ঞদের কেউ কেউ এটিকে তৃতীয় ঢেউ বললেও অনেকেই বলছেন দ্বিতীয় ঢেউয়ের আকার বেড়েছে।

এ অবস্থায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, চলতি বছর দেশে সংক্রমণের ২৪তম সপ্তাহে (গত এক সপ্তাহে) শুধু ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ ১১৪.৪ শতাংশ করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। এর পরের অবস্থানেই রয়েছে রংপুর বিভাগ, সেখানে সংক্রমণ বেড়েছে ৮৬.৭ শতাংশ।

সংস্থাটি আরও বলছে, দেশের ৬৪টি জেলার মধ্যে ৪০টিই সংক্রমণের অতি উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে। এর বাইরে আরও ১৫টি জেলা আছে সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে। সংক্রমণের মধ্যম ঝুঁকিতে আছে ৮টি জেলা।

আরও ……


মতামত দিন

আরও খবর