'বিডি ফ্রি প্রেস' বাংলাদেশের প্রথম সংবাদ সংযোগকারী ব্লগ

মূলপাতা বাংলাদেশ

ঢামেকের গবেষণা: অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার দুই ডোজ সম্পন্ন ৯৩% মানুষের শরীরে অ্যান্টিবডি


প্রকাশের সময় :২৭ জুন, ২০২১ ১২:৫১ : অপরাহ্ণ

 অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাঅক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার দুই ডোজ গ্রহণের দুই সপ্তাহের মধ্যে ৯৩% মানুষের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একটি গবেষক টিম।

এছাড়া টিকার প্রথম ডোজ নেয়ার ৪ সপ্তাহ পর ৪১% মানুষের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের পর অ্যান্টিবডি রেসপন্স গবেষণার ফলাফলে এ তথ্য উঠে এসেছে।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নেয়া ঢামেকের ৩০৮ জন ডাক্তার ও কর্মচারীর নমুনা সংগ্রহ করে দীর্ঘ ৫ মাস গবেষণার পর এমন ফলাফল উঠে এসেছে বলে জানান তারা।

আজ সকালে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গবেষণার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি ঢাকা মেডিকেল কলেজে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন ১ম ও ২য় ডোজের পর এন্টিবডি রেসপন্স এর ওপর একটি গবেষণা করা হয়।

ওই গবেষণাটি ঢাকা মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগে সম্পন্ন হয়।

ওই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. এসএম সামসুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে এক দল গবেষক এই গবেষণাটি সম্পন্ন করেন।

ওই গবেষণায় ঢামেকের ডাক্তার ও কর্মচারী থেকে ৩০৯টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ওই গবেষণার সময়কাল ছিল ৫ মাস।

১ম ভ্যাকসিন দেয়ার ৪ সপ্তাহ পর নমুনা (রক্ত) সংগ্রহ করা হয় এবং ৪১ শতাংশ অংশগ্রহণকারীর শরীরে এন্টিবডি পাওয়া যায়।

২য় ভ্যাকসিন দেয়ার ৪ সপ্তাহ পর নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং ৯৩ শতাংশ অংশগ্রহণকারীর শরীরে এন্টিবডি উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায়।

ওই গবেষণায় অর্থায়ন করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এছাড়া ঢামেকের অধ্যক্ষ ডা. মো. টিটো মিয়া এবং উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. শফিকুল আলম চৌধুরী গবেষণায় সর্বাত্মক সহযোগিতা করেন।


মতামত দিন

আরও খবর