সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

BDFreePress.com Is A Bangladeshi News Blog

মূলপাতা গণমাধ্যম

সংবাদ প্রকাশ: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ২ সাংবাদিক কারাগারে


প্রকাশের সময় :১ জুলাই, ২০২১ ১০:৪১ : অপরাহ্ণ

সাংবাদিককুষ্টিয়ায় যুবলীগ নেতার দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মুন্সী শাহীন আহমেদ জুয়েল ও অঞ্জন কুমার শীল নামে দুই সাংবাদিককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বুধবার ভোরে গ্রেফতারের পর সন্ধ্যার দিকে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

কুষ্টিয়া অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আদালত পুলিশের পরিদর্শক সঞ্জয় কুমার।

কারাগারে পাঠানো ২ সাংবাদিক হলেন অনলাইন নিউজপোর্টাল ‘ভয়েস অব কুষ্টিয়া’ এর প্রকাশক ও সম্পাদক মুন্সী শাহীন আহমেদ জুয়েল এবং নির্বাহী সম্পাদক অঞ্জন কুমার শীল শুভ।

মুন্সী শাহীন আহমেদ জুয়েল (৪২) সদর উপজেলার নলখোলা পাটিকাবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা মখলেসুর রহমানের ছেলে এবং অঞ্জন কুমার শীল শুভ (২৮) কুষ্টিয়া শহরের থানাপাড়ার এসভিপি সড়কের বাসিন্দা মৃত অখিল কৃষ্ণ শীলের ছেলে।

জানা গেছে, বুধবার (৩০ জুন) ভোরে সদর উপজেলার নিজ বাসা থেকে তাদের তুলে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। পরে বিকেলে তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা রেকর্ড করে সন্ধ্যায় আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ জুন ‘ভয়েস অব কুষ্টিয়া’ নামের নিউজপোর্টাল সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে বাধাগ্রস্ত ও ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার হীন উদ্দেশ্যে ‘কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজে রডের পরিবর্তে বাঁশ ও কাঠ ব্যবহার’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করে।

ওই খবরে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজে একটি ভবন নির্মাণে রডের পরিবর্তে বাঁশ ও কাঠ ব্যবহারের কথা উঠে আসে প্রতিবেদনে। ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি ভবনের একটি অংশ ধসে পড়ে। এতে এক শ্রমিক নিহত ও ১০ শ্রমিক আহত হন।’

মেডিকেল কলেজ ভবনের কোনো অংশ ধসে পড়েনি। নির্মাণকাজ চলাবস্থায় দুর্ঘটনায় শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। মামলায় মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশের অভিযোগ এনেছে এজাহারকারী। মামলাটিতে দুজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।

গ্রেফতার অঞ্জন কুমার শীল শুভর স্ত্রী স্মৃতি রানী শীলের অভিযোগ, গত ১১ জুন রাতে এক নারীর ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ২১ জুন কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা করেন আহত ওই নারীর মা। এ ঘটনার নিউজ প্রকাশিত হয়েছিল ভয়েস অব কুষ্টিয়ায়। ওই মামলায় মিজানুর রহমান মিজুর নাম ছিল। ওই সংবাদের প্রতিশোধ নিতেই তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করে হয়রানি করা হচ্ছে।

শাহীন আহমেদ জুয়েলের স্ত্রী সেলিনা আক্তার জানান, ভোরে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে আমাদের থানাপাড়ার বাসা থেকে জুয়েলকে তুলে নিয়ে যায়। পুলিশ আমাকে জানায়, জুয়েলের সঙ্গে আমরা একটু কথা বলতে চাই। কিছু তথ্য জানা দরকার, সেজন্য নিয়ে যাচ্ছি। বিকেলে শুনি, জুয়েলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা হয়েছে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি পুলিশ পরিদর্শক সাব্বিরুল আলম বলেন, আগের কোনো সংবাদ প্রকাশের সঙ্গে এ মামলার সম্পর্ক নেই। ‘কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজে রডের পরিবর্তে বাঁশ ও কাঠ ব্যবহার করা হয়েছে’ বলে সংবাদ প্রকাশ করে তারা ফেসবুকে ভাইরাল করেছে। এ ঘটনায় দুজনের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা হয়েছে।


মতামত দিন

আরও খবর