'বিডি ফ্রি প্রেস' বাংলাদেশের প্রথম সংবাদ সংযোগকারী ব্লগ

মূলপাতা গণমাধ্যম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সাংবাদিক গ্রেপ্তার


প্রকাশের সময় :১১ জুলাই, ২০২১ ৬:২১ : পূর্বাহ্ণ

তানভির হাসান তানুঠাকুরগাঁওয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এক সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ শনিবার রাত আটটার দিকে তানু মামলার বিষয়ে থানায় খোঁজ নিতে গেলে তদন্তকারী কর্মকর্তা ডালিম কুমার রায় তাকে গ্রেপ্তার করেন।

গ্রেপ্তার তানভির হাসান তানু তিনি ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশন, দৈনিক ইত্তেফাক এবং জাগোনিউজের জেলা প্রতিনিধি।

এছাড়াও ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক এবং ঠাকুরগাঁও অনলাইন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তিনি।

তদন্তকারী কর্মকর্তা ডালিম কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হাসপাতাল নিয়ে প্রকাশিত সংবাদটি ‘মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট এবং জনরোষ সৃষ্টিকারী ও মানহানিকর’ দাবি করে শুক্রবার ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ নাদিরুল আজিজ বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫(১)(ক) ২৫(১)(খ) ২৯(১)/৩১(১)/৩৫(১) ধারায় মামলাটি করেন।

ওই থানার অফিসার ইনচার্জ তানভিরুল ইসলাম জানান, এই মামলায় তানভীর হাসান তানু ছাড়া আরও দুজনকে আসামি করা হয়েছে।

তারা হলেন- বাংলাদেশ প্রতিদিনের আব্দুল লতিফ ও নিউজবাংলা টোয়েন্টিফোর ডটকমের জেলা প্রতিনিধি রহিম শুভ।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুলাই অনলাইন সংবাদমাধ্যম জাগো নিউজে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ডে রোগীদের খাবার নিয়ে ‘দিনে বরাদ্দ ৩০০ হলেও করোনা রোগীদের খাবার দেয়া হচ্ছে ৭০ টাকার!’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

অসুস্থ হয়ে পড়েছেন সাংবাদিক তানু, থানা থেকে নেয়া হলো হাসপাতালে

ঠাকুরগাঁওয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার জাগোনিউজ২৪.কমের জেলা প্রতিনিধি তানভীর হাসান তানু থানা হাজতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। সেজন্য সেখান থেকে তাকে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

শনিবার (১০ জুলাই) দিনগত রাত ১টার দিকে তানুর শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে হাসপাতালে পাঠান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভীরুল ইসলাম।

তানুর স্বজনরা জানান, করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। সম্প্রতি এ রোগ থেকে সুস্থ হন তানু। তবে এখনো তিনি শারীরিক অসুস্থতা অনুভব করছেন। তাকে নিয়মিত ওষুধ খাওয়ানো হচ্ছে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভীরুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক তানু হঠাৎ শারীরিক অসুস্থতা অনুভব করেন। বিষয়টি দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তারা আমাকে জানালে আমি তাকে হাসপাতালে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেই।

আরও পড়ুন …


মতামত দিন

আরও খবর